সুস্বাস্থ্য.কম

সুস্থ্য দেহ ও সতেজ মনের জন্য...

  • Increase font size
  • Default font size
  • Decrease font size
শিশুর খাদ্য ও পুষ্টি বিষয়ক নানা দিক

বুকের দুধ কম হলে কি করবেন

E-mail Print

অনেক সময় মায়ের বুকের দুধ কম হলে বা একদম না হলে অভিভাবকগন ভীষন দুশ্চিন্তায় পরে যান। এমনটি হবার কোনো কারন নেই বরং ধৈর্য্য ধরে এই সমস্যাটিকে সমাধান করতে হবে। যেমন -

১- উভয় স্তনের বোটা কে শিশুর জন্য পাচ মিনিট করে চুষতে দিতে হবে, একেবারে একফোটা দুধ না আসলেই এই কাজটা নিয়মিত করেই যেতে হবে।

২- এই সময়ে শিশুর পুষ্টির চাহিদা মেটানোর জন্য শিশুকে প্রক্রিয়াজাত কৌটার দুধ বা গরুর দুধ খাওয়ানো যেতে পারে কিন্ত লক্ষ্য রাখতে হবে কোনো অবস্থাতেই তা ফিডার বোতলে খাওয়ানো যাবেনা।

বিস্তারিত...
 

বুকের দুধ সম্পর্কে কিছু প্রশ্নোত্তর

E-mail Print

  • প্রঃ সব মা'কি বুকের দুধ খাওয়াতে পারবেন?

উঃ হ্যা বিশেষ কোনো রোগাক্রান্ত না হলে সব মা'ই বুকের দুধ খাওয়াতে পারবেন

  • প্রঃ সব মা'এর কি পর্যাপ্ত বুকের দুধ হয়?

উঃ হ্যা, মা শিশুর চাহিদা মতো বুকের দুধ দিলে এবং দিতে চাইলে পর্যাপ্ত পরিমান দুধ তৈরী হবেমা যদি মনে করেন যে তার যথেষ্ট দুধ নেই তাহলে তাকে আস্থা ও উৎসাহ দিতে হবে

  • প্রঃ বুকের দুধ কি নষ্ট হতে পারে?

উঃ না, বুকের দুধ নষ্ট হয়না, এটা সব সময়ই বিশুদ্ধ এবং নিরাপদ

  • প্রঃ স্তনের বোটায় ঘা বা ক্ষত হলে কি করতে হবে?

উঃ বুকের সামান্য দুধ বের করে তা বোটার ক্ষতস্থানে লাগিয়ে শুকিয়ে নিলে এ সমস্যার সমাধান হয়ে যায়এ ছাড়া হাল্কা গরম শেক দেয়া যেতে পারেএরপর ও সমস্যার সমাধান না হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবেমনে রাখতে হবে এটি খুব সাধারন এবং বহুল প্রচলিত একটি সমস্যা

  • প্রঃ বোতলে দুধ খাওয়ালে কি শিশুর কোনো ক্ষতি হয়?

উঃ হ্যা, বোতলে দুধ খাওয়ালে শিশুর অনেক রকম ক্ষতির সম্ভাবনা আছেএর ফলে শিশু অপুষ্টিতে ভোগে এবং শিশুর ঘন ঘন পাতলা পায়খানা বা ডায়রিয়া হয়এর ফলে শিশু অতি মূল্যবান এবং দুষ্প্রাপ্য মায়ের দুধ থেকেও বঞ্চিত হতে পারে

  • প্রঃ শিশু বড় হলে দুধ ছাড়তে না চাইলে কি করতে হবে?

উঃ বাচ্চাকে দুধ ছাড়ানোর প্রধান উপায় হলো সঠিক বয়সে তাকে উপযুক্ত খাবারে অভ্যস্ত করাশিশুকে তার পাচ ছয় মাস বয়স থেকে বয়সানুপাতিক খাবারে ধীরে ধীরে অভ্যস্ত করার ব্যাপারে সচেষ্ট থাকতে হবে

  • প্রঃ হঠাৎ করে দুধ ছাড়ানোর জন্য স্তন বোটায় করলার রস দেয়া যাবে কি?

উঃ হঠাৎ করে শিশুকে দুধ ছাড়ানোর কোনো প্রয়োজন নেই এবং এটা শিশুর জন্য ক্ষতিকর, শিশুকে স্বাভাবিক খাবারে অভ্যস্থ করতে হবেস্তনে অনেক সময় উলটা পালটা জিনিষ লাগালো স্তনবৃন্ত এবং শিশু উভয়েরই ক্ষতি হতে পারে

{flike}

 

শিশুর জন্য মায়ের বুকের দুধ (Breast Feeding)

E-mail Print

মায়ের দুধ শিশুর জন্য সবচেয়ে আদর্শ খাবার। ৬ মাস বয়স পর্যন্ত শুশু মায়ের দুধ ই শিশুর প্রয়োজনীয় সকল পুষ্টির যোগান দিতে পারে, এর পর শিশুর খাদ্য হিসেবে অন্য কিছু যোগ করার প্রয়োজন হতে পারে। জন্মের পরপরই শিশুর মুখে চিনির পানি, মধু বা সাদা পানি দেবার বিষয়টি পরিচিত ভ্রান্ত একটি ধারনা।

বিস্তারিত...
 

মায়ের বুকের দুধ কম হবার কারণ

E-mail Print

১। মায়ের অপুষ্টি ই প্রধান কারন হিসেবে বিবেচিত হয়। অনেক সময় মহিলাদের গর্ভবতী অবস্থায় এবং সন্তান প্রসবের পরবর্তী সময়ে কুসংস্কারজনিত কারনে মাছ-মাংস জাতীয় পুষ্টিকর খাবার থেকে বঞ্চিত রাখা হয়। সন্তান বড় হলে প্রসবে কষ্ট হবে এমন ভুল ধারনার কারনেও অনেকে গর্ভবতীকে কম খাবার দিয়ে থাকেন। এ সকল কারনে মা প্রসব পরবর্তী সময়ে অপুষ্টিতে ভোগেন এবং তার বুকের দুধের পরিমান কমে যেতে পারে। ফলস্বরূপ মায়ের অপুষ্টি সন্তানের অপুষ্টির কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

২। সঠিক অবস্থানে শিশুকে ধরে না রাখলে শিশু স্তনবৃন্ত বা নিপল চুষতে পারেনা,

বিস্তারিত...
 
  • «
  •  Start 
  •  Prev 
  •  1 
  •  2 
  •  Next 
  •  End 
  • »


Page 1 of 2

সম্পর্কিত আরও লেখা

সুস্বাস্থ্য সুপারিশ করুন

এই সাইটের সকল তথ্য শুধুমাত্র চিকিৎসা সংক্রান্ত জ্ঞানার্জন ও সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রকাশিত যা কোন অবস্থাতেই চিকিৎসকের বিকল্প নয়রোগ নির্নয় ও তার চিকিৎসার জন্য সংশ্লিস্ট চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া বাঞ্ছনীয়