সুস্বাস্থ্য.কম

সুস্থ্য দেহ ও সতেজ মনের জন্য...

  • Increase font size
  • Default font size
  • Decrease font size

গাইনিকোম্যাশিয়া (Gynaecomastia)

E-mail Print

ছেলেদের স্তন বড় হয়ে যাওয়াকে গাইনিকোম্যাশিয়া বলে। বয়োসন্ধির সময় ইসট্রোজেন হরমোনের উদ্দিপনায় মেয়েদের স্তনের স্বাভাবিক বৃদ্ধি ঘটে, এন্ড্রোজেন নামক হরমোন এটি হতে বাধা দেয়। এন্ড্রোজেন এর প্রভাবে একজন বালক পুরুষে রুপান্তরিত হবার দিকে এগিয়ে যায়। কোনো কারনে বালকদের দেহে এন্ড্রোজেন অপেক্ষা ইস্ট্রোজেনের প্রভাব বেশী হলে তাদের স্তন মেয়েদের মতো আকারে বৃদ্ধি পেতে পারে।

বালক বয়সের গাইনিকোম্যাশিয়া নিয়ে দুশ্চিন্তা করার কিছু নেই কারন অন্য কোনো সমস্যা না থাকলে তা নিজে নিজেই ঠিক হয়ে যায়। তবে কোনো ছেলে শিশুর যদি পৌরুষত্ব তৈরীর হরমোন গুলোর উৎপাদন ব্যহত হয় বা হরমোন উৎপাদনের অঙ্গগুলো পরিণত না হয় (Hypogonadism) তা হলে গাইনিকোম্যাশিয়া হবার সাথে সাথে তার শরীরের অন্যান্য অঙ্গ ও মেয়েদের মতো হয়ে যেতে শুরু করে।

পরিনত পুরুষের একপাশে গাইনিকোম্যাশিয়া হলে ধরে নেয়া হয় তার স্তন ক্যান্সার হয়েছে এবং তা নিশ্চিত করার জন্য অবশ্যই চিকিৎসকের স্মরনাপন্ন হওয়া উচিত। পুরুষের দুই পাশেই গাইনিকোম্যাশিয়া হলে আগে জেনে নিতে হয় তিনি ডিগক্সিন, সিমেটিডিন, স্পাইরেনোল্যাকটোন বা অন্য কোনো হরমোন জাতীয় অসুধ খাচ্ছেন কিনা। এই অসুধ গুলো দীর্ঘদিন ধরে খেলে গাইনিকোম্যাশিয়া হতে পারে।

অতিরিক্ত চর্বিহবহুলতার কারনে অনেক সময় স্তন বড় দেখাতে পারে কিন্ত মনে রাখতে হবে গাইনিকোম্যাশিয়া হলে স্তন শুধু আকারে বড় হয়না এর ভেতরে দুগ্ধ তৈরীর গ্রন্থিগুলোও বৃদ্ধি পেতে থাকে। তাই একজন চিকিৎসক হাত দিয়ে ভালো করে টিপে পরীক্ষা করে নিশ্চিত হতে পারেন তার রোগীর গাইনিকোম্যাশিয়া হয়েছে কিনা। গাইনিকোম্যাশিয়া হবার সন্দেহ হলে এর কারণ বের করার জন্য টেসটোস্টেরন (Testosterone), লিউটেনাইজিং হরমোন (Leutinizing hormone), ইস্ট্রাড্রিয়ল(Oestradiol), প্রলাকটিন(Prolactin), হিউমান কোরিওনিক গোনাডোট্রোপিন (Human chorionic gonadotrophin) ইত্যাদি হরমোনের রক্তের মাত্রা নির্ণয় করে দেখা হয়।

পুরুষের শুক্রাশয় (Testes) স্বাভাবিক থাকলে এবং উপরোল্লিখিত কোণো অসুধ খাবার ইতিহাস না থাকা সত্ত্বেও যদি গাইনিকোম্যাশিয়া হয় তা হলে তা কোনো অসুধে ভালো করা সম্ভব নয়। বড় স্তন যদি দৃষ্টিকটু লাগে বা অন্যান্য সমস্যার সৃষ্টি করে তাহলে তা কসমেটিক সার্জন বা প্লাস্টিক সার্জন কতৃক অপারেশন করিয়ে নেয়াই ভালো।

 

 

সুস্বাস্থ্য সুপারিশ করুন

এই সাইটের সকল তথ্য শুধুমাত্র চিকিৎসা সংক্রান্ত জ্ঞানার্জন ও সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রকাশিত যা কোন অবস্থাতেই চিকিৎসকের বিকল্প নয়রোগ নির্নয় ও তার চিকিৎসার জন্য সংশ্লিস্ট চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া বাঞ্ছনীয়